সুবাহানাল্লাহ! একই গাছে আলু ও টমেটো চাষ (ভিডিও)

0
Loading...

একই গাছে হচ্ছে আলু ও টমেটো চাষ। শেকড়ে আলু ও শাখা-প্রশাখায় টমেটো। যুক্তরাজ্যে বাণিজ্যিকভাবে এখন চাষ হচ্ছে নতুন উদ্ভাবিত সবজি। সাধারণ আলু ও সবজির মতোই রয়েছে এর পুষ্টি গুণ।

একই গাছে টমেটো ও আলু চাষ করার উদ্ভাবক বিজ্ঞানী পল গাছটির নামকরণ করেছেন ‘টমটেটো’। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের শার্ফলকের ইফসহুইছে থমসন ও মরগ্যানের মালিকাধীন কৃষি খামারে এ গাছের উদ্ভাবন করা হয়। খামারটির পরিচালক হলেন পল হেনসড। তিনিই এ ‘টমটেটো’ গাছের উদ্ভাবক।

Loading...

একটি ‘টমটেটো’গাছের শাখা-প্রশাখা জুড়ে ৫০০ বা তারও বেশি চেরি টমেটো ধরে। আর নিচে সাদা সতেজ গোল আলু ধরে, যা দেখতে খুবই সুন্দর। কোনো জেনেটিক পরিবর্তন না করে শতভাগ প্রাকৃতিক উপায়ে চাষ হচ্ছে এই আলু এবং টমেটো। এমনটাই জানালেন উদ্ভাবক পল।

tamuto

তিনি জানান, যুক্তরাজ্যে এর আগে এ ধরনের গাছ আবিষ্কার করা হলেও এবারই প্রথম বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদনের জন্য উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে।

এর আগে বাংলাদেশেও কলম পদ্ধতিতে এ ধরনের একটি গাছ উদ্ভাবন করা হয়। কাজটির নেতৃত্ব দেন কৃষিবিদ এসএইচএম গোলাম সরওয়ার। ওই গবেষণায় সহযোগী হিসেবে ছিলেন জেনেটিক্স অ্যান্ড প্ল্যান্ট ব্রিডিং বিভাগের এমএস ছাত্র কায়েস, রফিক, সঞ্জিত, রনি ও ফরিদ।

তাদের মতে, ‘শীতের শুরুতে অর্থাৎ মধ্য অক্টোবর থেকে নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে গ্রাফটিং পদ্ধতিতে একই গাছে আলু ও টমেটো চাষের উত্তম সময়। ওই সময় অর্থাৎ পুরো শীত মৌসুম দীর্ঘদিন আলু মাটির নীচে রাখা সম্ভব। এর ফলে আলুর আকৃতি বড় হয় ও ফলনও বৃদ্ধি পায়। স্বল্প পরিসরে এই পদ্ধতি লাভজনক।’

যুক্তরাজ্যের রয়েল হর্টিকালচার সোসাইটির (আরএইচসি) প্রধান গাই বারটার বলেন, ‘আগের টমটেটো খাওয়ার উপযোগী স্বাদ ছিলো না। তবে বর্তমানে যে ‘টমটেটো’ উদ্ভাবন করা হয়েছে, তা সত্যি অসাধারণ। অতীতে এ গাছের প্রতি আমার কোনো আগ্রহ ছিলো না। তবে থমসন এবং মরগান খামারে উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে উদ্ভাবন করা এ গাছের প্রতি আমার খুবই আগ্রহ, যা মূল্যবান ফসল হতে পারে।’

 

aut

ওই কৃষি খামারের পরিচালক পল হেনসড বলেন, “আমাদের দীর্ঘ পরিশ্রমের ফসল হলো ‘টমটেটো’। আমার মাথায় প্রথম এই ধারণা আসে ১৫ বছর আগে। আমি যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণকালে দেখতে পাই, সেখানকার মানুষ মজা করে টমেটো খেতে গোলআলুর চাষও করছে। তারপর আমি চিন্তা করলাম, যেহেতু এ ফসল দুটি একই পরিবারের উদ্ভিদ, তাই এটি একসঙ্গে উৎপাদনে আরো মনোযোগ দেওয়া দরকার। সেটি সম্ভব হলে ফসল দুটি আরো ভালো বা বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন সম্ভব। এর পর থেকেই আমি আমার চিন্তাকে বাস্তবে রূপ দিতে কাজ শুরু করি ও অবশেষে সফল হই।”

তিনি আরো বলেন, ‘এটি অনেক কঠিন কাজ ছিলো। কারণ টমেটো ও আলুর কাণ্ড একই রকম পুরু, যা প্রথমেই আমার কাজকে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দেয়। আমি অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করি। সেই সঙ্গে একজন বিশেষ কলম বিশেষজ্ঞের সাহায্য নিই। তিনি আমাকে এমন একটি পদ্ধতি বের করে দেন, যা গোলআলুকে একটি নির্দিষ্ট আকার দেয়।’

aas

পল হেনসড বলেন, ‘আমরা গত ঋতুতেই ‘টমটেটো’ গাছের টমেটো ও গোলআলু বিক্রির জন্য বাজারে পাঠিয়েছিলাম। তার আগে আলফা স্যালাইন টেস্টে ওই আলু ও টমেটোতে কোনো ধরনের বিষ আছে কি-না তা পরীক্ষা করা হয়। ওই পরীক্ষায় ফসল দুটিতে কোনো ধরনের বিষ নেই এবং স্বাস্থ্যের জন্যও ক্ষতিকর নয় উল্লেখ করে আমাদের সনদ দেওয়া হয়।’

তিনি জানান, অন্যান্য লোকাল টমেটো থেকে এই চেরি টমেটোগুলোর স্বাদ মিষ্টি। যুক্তরাজ্যে এই গাছের চারা এপ্রিল থেকে রোপন শুরু হয়। জুলাই মাসে এর ফলন ধরে। যা পরিপক্ক হওয়ার পর সেপ্টেম্বরে বাজারে বিক্রি হয়।

এ গাছের চারা বাজারেও বিক্রি করা হচ্ছে। প্রতিটির দাম পড়বে ১৪.৯৯ পাউন্ড বা ২৪ ডলার। ‘টমটেটো’ চারা গাছের উচ্চতা থাকে ৩.৫ ইঞ্চি। এই গাছ বাড়ির বাইরে বা ভেতরে সব জায়গায় রোপন করা যায়। ৪০ কেজি ওজন বহনে সক্ষম এমন ব্যাগে মাটি ভরেও এই গাছ লাগানো যায়।

বাড়ির উঠোন, রান্না ঘরের পাশের বাগান, শীতপ্রধান বা মরুঅঞ্চলে গ্রিন হউজের মাধ্যমে বা কাঁচের সংরক্ষিত ঘরে এবং প্রখর সূ্র্যের আলোতেও এই টমটেটো গাছ রোপন করা যাবে বলে জানান পল।

বাংলাদেশেও শীতকালে এই গাছ জন্মানো যাবে। এ দেশে গাছটি রোপনের করার সময় অক্টোবর, নভেম্বর, ডিসেম্বর ও জানুয়ারি।

hattamoto

সাধারণ আলুর মতো এ আলুতে বরং অধিক পুষ্টিগুণ রয়েছে। এ আলু থেকে তিনগুণ ভিটামিন সি, এ, ফলিক এসিড, ফাইবার ও প্রচুর পরিমাণে খনিজ পদার্থ পাওয়া যাবে।

গাছটি সংগ্রহে যোগাযোগ করতে পারেন এই ঠিকানায় : www.thompson-morgan.com অথবা সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন এ নম্বরে 08445731818. থমসন-মরগান খামারে টমটেটো চাষ নিয়ে একটি ভিডিও চিত্র ধারণ করা হয়। চলুন দেখে নেওয়া যাক ভিডিওটি।

Loading...

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন!
[X]
Loading...