তেজপাতা তাড়াবে তেলাপোকা!

0
Loading...

তেলাপোকা খুব বিরক্তিকর প্রাণী। ছোট্টএই প্রাণী বিভিন্ন ধরনের রোগজীবাণু বহন করে এবং খাবারে সেগুলো ছড়িয়ে মানব দেহের ক্ষতি করে। যখন এটা খাবারের মধ্যে আসে তখন লালার মাধ্যমে মাইক্রোঅর্গানিজম (এক ধনের অনুজীব) ছড়ায়, যা স্বাস্থ্য সমস্যা তৈরি করে। এ ছাড়া ঘরের বিভিন্ন জিনিস যেমন বই, কাপড়, বৈদ্যতিক পণ্য ইত্যাদি নষ্ট করতে এর যেন তুলনাই নেই! মাইহেলথ টিপস জানিয়েছে তেলাপোকার এসব যন্ত্রণা থেকে রেহাই পাওয়ার প্রাকৃতিক এবং রাসায়নিক উপায়।

রাসায়নিক উপায়  কীটনাশক স্প্রে

বাজারে বিভিন্ন ধরনের রাসায়নিক কীটনাশক স্প্রে রয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে সাইফ্লুথ্রিন। যা তেলাপোকা মারার খুব ভালো পদ্ধতি। ঘরের যেসব গোপন জায়গায় তেলাপোকা বসবাসের আশঙ্কা রয়েছে সেসব জায়গা স্প্রে করতে হবে। যেমন : দেয়ালের ফাঁটল, ভ্যান্টিলেটর, ড্রেন, ময়লা ফেলার স্থান ইত্যাদি। তেলাপোকা সাধারণত উষ্ণ এবং স্যাঁতস্যাঁতে জায়গায় বংশ বৃদ্ধি করে। তবে স্প্রে ব্যবহারের আগে নিরাপত্তার দিক নির্দেশনা মেনে চলুন এবং স্প্রেটি শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।

Loading...

তেলাপোকা মারার তরল

তেলাপোকা মারার এক ধরনের তরল পাওয়া যায়, যেটা তেলাপোকার জন্য বিষের মতো কাজ করে। এটি একবার ব্যবহার করলে দুই সপ্তাহের জন্য তেলাপোকা দূরে চলে যায়। পানির মধ্যে তেলাপোকা মারার তরল মেশান। এরপর তেলাপোকা আছে- এমন জায়গাগুলোতে স্প্রে করুন। মেঝেতেও এই মিশ্রণ ব্যবহার করুন। তেলাপোকার সংক্রমণ প্রতিরোধে মাঝেমধ্যে এটা ব্যবহার করতে পারেন।

কীটনাশক

যদি বাড়িতে তেলাপোকার উপদ্রব খুব বেশি হয়- কীটনাশক স্প্রে করতে পারেন। যার মধ্যে সাইপারমেথ্রিন রয়েছে। এর প্রভাব তিন মাস পর্যন্ত থাকে। এটি বাড়িতে পোকামাকড় রোধ করবে। যদি বাসায় শিশু অথবা গৃহপালিত প্রাণী থাকে তবে এটা ব্যবহার করবেন না।

যদি রাসায়নিক জিনিসগুলো এড়িয়ে যেতে চান তবে তেলাপোকা মারার কিছু প্রাকৃতিক পদ্ধতি রয়েছে।

প্রাকৃতিক পদ্ধতি চিনি এবং বেকিং সোডা

এটা তেলাপোকা মারার একটি সহজ পদ্ধতি। বেকিং সোডা এবং চিনির একটি মিশ্রণ তৈরি করতে পারেন এবং তেলাপোকা জন্মায় এমন জায়গায় ছিটিয়ে দিতে পারেন। চিনির আকর্ষণে তেলাপোকা কাছে আসবে আর বেকিং সোডা এগুলোকে মারবে।

তেজপাতা

এটা অত্যন্ত সস্তা এবং সুবিধাজনক তেলাপোকা মারার ঘরোয়া উপায়। সাধারণত রান্নায় সুগন্ধের জন্য তেজপাতা ব্যবহার করা হয়। তেজপাতা গুঁড়ো করে তেলাপোকা যেসব জায়গায় থাকে সেসব জায়গায় ছিটিয়ে দিতে পারেন। এর গন্ধ তেলাপোকাকে বাড়ির বাইরে বের করে দেবে। তেলাপোকা এমনিতেই চলে যাবে। মারার প্রয়োজন পড়বে না।

সাবান

তেলাপোকা থেকে পরিত্রাণ পেতে গোসলের সাবানও ব্যবহার করতে পারেন। পানিতে সাবান গুলিয়ে তেলাপোকার গায়ে ছিটিয়ে দিতে পারেন। এতে বেশির ভাগ তেলাপোকাই দ্রুত মরে যাবে। তেলাপোকা যেসব স্থানে বসবাস করে সেখানেও মিশ্রণটি ব্যবহার করতে পারেন।

অ্যামোনিয়া

অ্যামোনিয়া গন্ধ একটু কটু যাতে তেলাপোকা বিরক্ত হয়। এক বালতি পানির মধ্যে দুই কাপ এমোনিয়া রান্না ঘরের সিংক এবং বাথরুমে ছিটিয়ে দিন। অ্যামোনিয়ার গন্ধে তেলাপোকা চলে যাবে। তেলাপোকা মুক্ত ঘর রাখতে সপ্তাহে এক  বা দুইবার এটা করতে পারেন।

মরিচ, রসুন, পেঁয়াজ

সামান্য পানিতে এক টেবিল চামচ গোল মরিচের গুঁড়া,একটা রসুনের কোয়া,একটা পেঁয়াজ বাটা মেশান। এটাকে এক ঘণ্টা রেখে দিন। এরপর এক টিবিল চামচ লিকুইড সাবান মেশান এবং তেলাপোকার আস্তানায় ছড়িয়ে দিন। এর গন্ধ তেলাপোকাকে দূরে তাড়িয়ে দেবে।

Loading...

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন!
[X]
Loading...